পার্বত্য বান্দরবান জেলার ইতিহাস-বান্দরবান জেলার দশনীয় স্থানসমুহ।

বাংলাদেশের প্রশাসনিক ব্যবস্থায় গুরুত্বপূর্ণ একটি স্তর হচ্ছে জেলা। সাধারণত কয়েকটি উপজেলা নিয়ে জেলা গঠিত হয়। আবার কয়েকটি জেলা নিয়ে একটি বিভাগ গঠিত হয়। বাংলাদেশে বিভাগ রয়েছে ৮টি। বিভাগ গুলো হচ্ছে ঢাকা, চট্রগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট, রংপুর, বরিশাল, খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগ। চলুন দেখি কোন কোন বিভাগে কোন কোন জেলা রয়েছে।

এক নজরে পার্বত্য বান্দরবান জেলার পরিচিতি,দশনীয় স্থানসমুহ।
ঢাকা বিভাগ (১৩টি জেলাঃ-- নরসিংদী, গাজীপুর, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, নারায়নগঞ্জ, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ ও ঢাকা জেলা অবস্থিত। 
চট্রগ্রাম বিভাগ (১১টি জেলাঃ}- চট্রগ্রাম, ফেনী, কুমিল্লা, ব্রাহ্মনবাড়িয়া, নোয়াখালী, লক্ষীপুর, চাদপুর, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, কক্সবাজারবান্দরবান জেলা।
ময়মনসিংহ বিভাগ (৪টিঃ- ময়মনসিংহ, জামালপুর, নেত্রকোণা ও শেরপুর জেলা অবস্থিত। 
রংপুর বিভাগ (৮টি জেলাঃ-রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারি, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাও, পঞ্চগ্রাম ও গাইবান্ধা জেলা অবস্থিত। 
বরিশাল বিভাগ (৬টি জেলাঃ-বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, বরগুনা, ঝালকাঠি ও পিরোজপুর জেলা অবস্থিত। 
খুলনা বিভাগ (১০টি জেলাঃ-খুলনা, যশোর, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, কষ্টিয়া, মাগুরা, বাগেরহাট, ঝিনাইদহ, সাতক্ষীরা ও নড়াইল জেলা অবস্থিত। 
রাজশাহী বিভাগ (৮টি জেলাঃ-সিরাজগঞ্জ, পাবনা, রাজশাহী, নাটোর, নওগা, জয়পুরহাট, চাপাইনবাবগঞ্জ ও বগুড়া জেলা অবস্থিত।
সিলেট বিভাগ (৪টি জেলাঃ-সিলেট, সুনামগঞ্জমৌলভীবাজার  হবিগঞ্জ জেলা অবস্থিত।

আজকের টপিক্স জুড়ে থাকবে চট্রগ্রাম বিভাগের বান্দরবান জেলার গুরুত্বপুর্ণ তথ্য ও জেলা পরিচিতি, দর্শনীয় স্থান, উল্লেখযোগ্য ব্যাক্তিবর্গ ও প্রসিদ্ধ খাবার সমূহ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা ।

বান্দরবান জেলা পরিচিতি

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত চট্রগ্রাম বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল হচ্ছে বান্দরবান জেলা। এটি একটি পার্ব্ত্য জেলা।  এটি পুর্বে রাঙ্গামাটি জেলার প্রশাসনিক ইউনিট ছিল। ১৯৮১ সালের ১৮ এপ্রিল তৎকালীন লামা মহকুমার ভৌগোলিক ও প্রশাসনিক সীমানাসহ সাতটি উপজেলার সমন্বয়ে বান্দরবান পাবর্ত্য জেলা হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে।

রাজধানী ঢাকা থেকে এ জেলার দুরত্ব ৩২৫ কিলোমিটার এবং চট্রগ্রাম বিভাগীয় সদর থেকে এ জেলার দুরত্ব ৭৫ কিলোমিটার।  এ জেলার পশ্চিমে কক্সবাজার জেলা ও চট্রগ্রাম জেলা, উত্তরে রাঙ্গামাটি জেলা, পূর্বে রাঙ্গামাটি জেলা ও মিয়ানমারের চিন রাজ্য এবং দক্ষিণে ও পশ্চিমে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য অবস্থিত। ধর্মবিশ্বাস অনুসারে এ জেলার মোট জনসংখ্যার ৫২.৬৮% মুসলিম ৩.৪২% হিন্দু, ২৯.৫২% বৌদ্ধ এবং ৯.৭৮% খ্রিস্টান ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বী।

বান্দরবান জেলার প্রশাসনিক চিত্র

বান্দরবান জেলা ৭টি উপজেলা, ৭টি থানা, ২টি পৌরসভা, ৩৩টি ইউনিয়ন, ৯৬টি মৌজা, ১৪৮২টি গ্রাম ও ১টি সংসদীয় আসন নিয়ে গঠিত। বান্দরবান জেলার উপজেলা সমূহ --

  • আলীকদম
  • থানচি
  • নাইক্ষ্যংছড়ি
  • বান্দরবান সদর
  • রুমা
  • রোয়াংছড়ি
  • লামা

বান্দরবান জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ

  • কানা পাড়া পাহাড়
  • নীলাচল
  • প্রান্তিক লেক
  • বোমাং রাজবাড়ী
  • বৌদ্ধ ধাতু জাদী (স্বর্ণ মন্দির)
  • মেঘলা পর্যটন কমপ্লেক্স
  • শুভ্র নীলা
  • শৈল প্রপাত
  • সাঙ্গু নদী

বান্দরবান জেলার বিখ্যাত খাবার

বান্দরবানের আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী খাবার মুন্ডির খ্যাতি দিন দিন বাড়ছে। অনেকটা নুডুলসের মতো এ খাবার বিক্রির জন্য বান্দরবান শহরে বেশ কয়েক স্থানে গড়ে উঠেছে মুন্ডি হাউস। এসব রেস্তোরায় বিকেল থেকে রাত অবধি জমজমাট থাকে কেনাবেচা।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url